কোথাও আমি নেই

April 5, 2013

তোমায় আমি শরতে লিখেছি, বর্ষায় লিখেছি, শীত ও বসন্তেও লিখেছি;
যখন ফুল ফুটেছে, সেই ফুলের নির্যাসটুকু তোমায় দিতে চেয়েছি।
পাওনি বলছ?

বৃষ্টির রিমঝিম শব্দ দিয়েছি,
দিয়েছি শরতের দুপুর, শীতের সকাল আর বসন্তের বিকেল।
পাওনি বলছ?

দিয়েছি রংধনু থেকে এনে সাত রং আমার দেয়া জলরঙের ছবিতে;
জোছনার সাথে মিতালি পাতিয়েছিলাম,
শুধু একটুখানি তোমার জানালা দিয়ে উকি দেবে বলে।

সমুদ্রের অট্রনাদকে থামিয়ে দিয়েছিলাম তোমার কথা শুনতে পাচ্ছিলাম না যখন;
মরুভূমির পথ ধরে হেটেছিলাম আর ভেবে হেসেছিলাম এই বুঝি অঝর ধারায় বৃষ্টি হয়ে ঝরবে তুমি।

অঙ্গিরাকে  সময়ের প্রহরী করে মহাশুন্যে ভেসে বেড়িয়েছি তোমায় নিয়ে;
তোমার দেয়া দুঃখ অঞ্জনের কালী হয়ে লেপ্টে ছিল সারারাত আমার চোখে-মুখে।

তবু তুমি খুঁজে পাওনি আমায় – না জগতে, না মহাজগতে; না ছায়ায় না অচ্ছায়ায়;
বৃথা সময়ের এ কি আস্ফালন প্রতিধ্বনিত হয় চারিপাশ ঘিরে আমায়!